আর্থ ডে তে গুগল ডুডলের চমক

প্রতিটি দিবসেই জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল তার ডুডলে উক্ত দিবসের তাৎপর্যকে তুলে ধরে। তাই এবার আর্থ ডে তে প্রতিবারের মতো এবারও চমকে দিয়েছে গুগল ডুডল। এবার স্থান পেয়েছে জলবায়ু পরিবর্তনের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাতে দেখা গিয়েছে, আমাদের গ্রহের উপরে এর কী প্রভাব পড়েছে।

এদিনের গুগল ডুডলে দেখা গিয়েছে পৃথিবীর নানা অংশের দৃশ্য। এর মধ্যে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার গ্রেট বেরিয়ার রিফে কোরাল ব্লিচিং, তাপমাত্র বৃদ্ধি ও অতি খড়ার কারণে বার্ক পোকার সংক্রামনও বৃদ্ধি পাওয়ায় জার্মানির হার্জ জঙ্গল ধ্বংস, গ্রীনল্যান্ড ও আফ্রিকার ক্লিমানজারো পর্বতের চূড়ার হিমবাহ পতনের মতো দৃশ্য। তুলে ধরা হয়েছে, মানুষের অবহেলা ও অন্যান্য কারণে কীভাবে দশকের পর দশক ধরে অবক্ষয়ের দিকে এগিয়ে চলেছে পৃথিবীর নানা ভূমিরূপ।

mnt kli 1 1 1
মাউন্ট ক্লিমানজারো পর্বতের চূড়ায় হিমবাহ পরিবর্তনের দৃশ্য (১৯৮৬-২০২০)

 

গুগল জানিয়েছে, গ্রিনহাউস গ্যাস নিষ্ক্রমণই জলবায়ুর পরিবর্তনের অন্যতম কারণ। জাতিসংঘ বলছে, গ্রিনহাউস গ্যাস যত পৃথিবীর উপরের অংশকে কম্বলের মতো জড়িয়ে ধরেছে, ততই তা সূর্যের উত্তাপকে শুষতে শুরু করেছে। এর ফলেই বিশ্ব উষ্ণায়নের সৃষ্টি হয়েছে। ইতিহাসের হিসেবে, পৃথিবী এই মুহূর্তে যত দ্রুত গলছে তা সর্বকালীন রেকর্ড।

harz 1 1 1
তাপমাত্র বৃদ্ধি ও অতি খড়ার কারণে বার্ক পোকার সংক্রামনও বৃদ্ধি পাওয়ায় জার্মানির হার্জ জঙ্গল ধ্বংসের চিত্র (১৯৯৫-২০২০)

 

উল্লেখ্য, ১৯৭০ সালের ২২ এপ্রিল পালিত হয়েছিল প্রথম আর্থ ডে। এরপর থেকেই প্রতি বছর পালিত হচ্ছে এই দিনটি। ১৯৬৯ সালে সানফ্রান্সিসকোর ইউনেস্কো সম্মেলনে ঠিক হয় ওই দিনেই পালিত হবে দিনটি। আসলে ওই সময়ে পরিবেশ সচেতনতার আন্দোলন শুরু হয়েছিল আমেরিকায়। আর সেখান থেকেই জন্ম নেয় পৃথিবী দিবস পালন করে সকলকে সচেতন করার পরিকল্পনা। কিন্তু দীর্ঘ পাঁচ দশক ধরে এই দিনে সকলকে সচেতন করেও যে লাভ হয়নি, তা পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে এদিনের গুগল ডুডলের ছবিতে। যা বুঝিয়ে দিয়েছে, আরও বেশি করে সচেতন হওয়ার প্রয়োজন হয়েছে।

Leave a Reply