পাঁচ কারণে বিস্ফোরিত হতে পারে আপনার ফোন

হঠাৎই চোখের সামনে দাউদাউ করে জ্বলে উঠল আপনার প্রিয় ফোন সেটটি। ইদানিং ফোন বিস্ফোরণের হার বেড়েই চলেছে। আহত-নিহত হচ্ছে মানুষ। মূলত মোবাইল ফোনের ব্যাটারির ম্যালফাংশনের কারণেই এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটছে অহরহ। কিন্তু কেন ফোনে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটছে তা হয়তো আমরা জানিনা। আসুন দেখে নেই কোন পাঁচ কারণে বিস্ফোরিত হতে পারে আপনার ফোন।

১. আপনি যদি ফোনে আসল চার্জার ব্যবহার না করেন তাহলে ব্যাটারি চার্জ করার সময় ব্যাটারি বিস্ফোরিত হতে পারে। অধিকাংশ ফোন সেট কেনার সময়ে আসল চার্জার ফোন বাক্সে পাওয়া যায়। তবে কিছু ব্যতিক্রমও আছে। তবে ইদানিং অ্যাপলসহ কয়েকটি পোন কোম্পানির ফোনের সঙ্গে চার্জার দেওয়া হয় না। না দেয়া হলেও তাদের সুপারিশকৃত চার্জার কিনতে হয়। দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে অনেক ক্ষেত্রে চার্জার ও এডাপটার নষ্ট হয়ে গেলে অনেকেই কম দামের খারাপ কোয়ালিটির চার্জার কেনেন। ফলে বিপত্তি এখানেই ঘটে। চার্জার কেনার প্রয়োজন হলে অবশ্যই ভালো কোম্পানির চার্জারই কেনা উচিত।

২. অতিরিক্ত চার্জ দেয়ার ফলে অনেক সময়েই ব্যাটারি নষ্ট হয়ে যায়। বেশিরভাগ মানুষই সারারাত ফোন চার্জে বসিয়ে রাখেন। যা একেবারই উচিত নয়। ফোনের ব্যাটারি ১০০ শতাংশ চার্জ হয়ে গেলেই তা চার্জার থেকে খুলে রাখা বাধ্যতামূলক।

৩. অসাবধানতাবশতঃ ফোনে কোনভাবেই যাতে পানি না ঢুকে সে ব্যাপারে লক্ষ্য রাখা উচিত। পানি জাতীয় পদার্থ থেকে ফোনের ব্যটারির ক্ষতি হতে পারে। তবে পানি ঢুকে গেলে খুব দ্রুত ফোনটিকে সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে যাওয়াই হবে উত্তম কাজ।

৪. অনেক সময় শখের স্মার্টফোনটি নিচে পড়ে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয় এমনকি ভেঙে চুরমার হয়ে যায় স্ক্রিন। সেই অবস্থাতেও অনেকে ফোন ব্যবহার করেন অনেকে। যা একেবারেই ঠিক নয়। তাই ফোনের বাহ্যিক কোনও ক্ষতি হলেও সঙ্গে সঙ্গে সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে ভাঙ্গা অংশ পরিবর্তন বা মেরামত করে নেয়া উচিত।

৫. অনেক সময় আপনার ফোনটি মেরামত করতে অদক্ষ মেরামতকারীর সাহায্য নেন, এতেও ফোনের ব্যাটারি খারাপ হতে পারে।

তাই ফোনের ব্যাটারি স্বাস্থ্য ঠিক রাখলে বিস্ফোরণ ঘটার সম্ভাবনা একেবারেই কম।

Leave a Reply