Facebook Reels : ফেসবুক রিল থেকে আয় করুন মাসে ৪ লক্ষ টাকা -Update 202

Facebook Reels : টিকটক বা ইনস্টাগ্রামের মতোই ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হচ্ছে ফেসবুক শর্ট-ভিডিও Facebook Reels। Facebook তার নতুন এই ফিচারটিকে আরো দর্শকপ্রিয় করার জন্য জোর দিচ্ছে অরিজিনাল কনটেন্টের। এ জন্য কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের উৎসাহিত করতে দেয়া হচ্ছে আর্থিক বোনাস। এজন্য Reels Play বোনাস প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করতে হবে। আপনি চাইলে এ প্রোগ্রামের মাধ্যমে উপার্যন করতে পারেন মাসে অন্ততঃ ৪ লক্ষ টাকা।

ফেসবুক রিলস (Facebook Reels) কী?

ফেসবুকে রিলস মূলতঃ শর্ট ভিডিও। Facebook Reels ভিডিওগুলো অনেকটা টিকটক, লাইকি ভিডিওর মতোই। এখানে আপনি পূর্বে থেকে তৈরি করা ভিডিওগুলো আপলোড করতে পারবেন। আবার রিলস অপশন ব্যবহার করেও সরাসরি শর্টস ভিডিও তৈরি করতে পারেন। আজকাল Facebook Reels বানানো এখন এক ধরনের নতুন ট্রেন্ড। টিকটকের মতোই এতে লাইক দেয়া যাচ্ছে, করা যাচ্ছে শেয়ার। আবার ভাইরাল হলে মিলছে হাজার হাজার লাইক। ফেসবুক রিলস এর বিশেষ একটি বৈশিষ্ট্য হলো আপনি চাইলে ইনস্টাগ্রামের রিলস ভিডিওগুলোও এখানে দেখতে পারবেন। যে কোনো কনটেন্ট ক্রিয়েটর মাত্র ১ মিনিটের ভিডিও বানিয়েই ভাইরাল হয়ে যেতে পারেন।

ফেসবুক অ্যাপসেই দেখা যাবে Facebook Reels

ফেসবুকে রিলস দেখার জন্য আপনাকে আলাদা কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে না। ফেসবুক অ্যাপ থেকেই রিলসের যাবতীয় কার্য সম্পাদন করতে পারবেন, দেখতে পারবেন সকল রিলস ভিডিও। ফেসবুক রিলসে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ৬০ সেকেন্ডের শর্ট ভিডিও তৈরি করতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে আপনার ইনস্টাগ্রাম রিলের জন্য তৈরি ভিডিও ফেসবুক রিলসে শেয়ার করতে পারবেন। আবার আপনি অন্যের তৈরি ভিডিও নিয়ে তার সঙ্গে সমন্বয় করে নতুন ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

Facebook Reels এ অরিজিনাল কনটেন্ট 

ফেসবুকে রিলস এর জন্য বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেটওয়ার্ক। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামও চালু করেছে শর্ট-ভিডিও ফিচার Reels। Instagram Reels ও বেশ জনপ্রিয়। এই জনপ্রিয়তার সুযোগ নিতে Meta এবার Facebook Reels ফিচারটি  যুক্ত করেছে। দেয়া হয়েছে  নতুন এডিটিং টুলস। আছে ভিডিও ক্লিপিং এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় ফিচার।  ফেসবুকে শর্ট-ভিডিওর জন্য ইউজারদের অরিজিনাল কন্টেন্ট তৈরি করতে হবে।

জানা যায়, Facebook Challenges এর মাধ্যমে কনটেন্ট ক্রিয়েটররা Reels Play বোনাস প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। যারা উচ্চ-মানের অরিজিনাল কনটেন্ট  তৈরি করবে তাদেরকেই এ পুরস্কার দেয়া হবে। প্রতি মাসে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের সর্বোচ্চ ৪ হাজার ডলার (প্রায় ৪ লাখ টাকা) পর্যন্ত পুরস্কার দেওয়া হবে। প্রোগ্রামের সমস্ত নির্মাতারা প্রতি মাসেই এ প্রোগ্রামে অংশ নিতে পারেন।

Facebook Reels এ যেভাবে চ্যালেঞ্জ সম্পন্ন করতে হবে

যখন আপনার ৫ টি Facebook Reels  ১০০-১০০  বার প্লে করা হবে, তখন কোম্পানি ২০ ডলার  পুরষ্কার দেবে। এই চ্যালেঞ্জটি শেষ করার পরে, কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য আরেকটি চ্যালেঞ্জ আনলক করা হবে। অর্থাৎ, ৫টি রিল চ্যালেঞ্জ শেষ করার পরে, নির্মাতা একটি নতুন চ্যালেঞ্জ পাবেন, যেখানে তার ২০টি রিল ৫০০-৫০০ বার প্লে করতে হবে, এতে কোম্পানি ১০০  ডলার পুরস্কার দেবে।

বোনাস মেয়াদের প্রতি ৩০  দিন পর  পর চ্যালেঞ্জে ক্রিয়েটরদের অগ্রগতি পুনরায় র‌্যাঙ্ক করা হবে। এতে অন্যের কন্টেন্ট কপি করার জন্য ইউজারদের কোনো পুরস্কার দেওয়া হবে না। এটিতে, ইউজারদের শুধুমাত্র অরিজিনাল কনটেন্টের  জন্য অর্থ প্রদান করা হবে।

আরও পড়ুন: 

ইউটিউব থেকে আয় করতে চান লাখ টাকা? জেনে নিন ৯ টি উপায় – Income from Youtube 2022

ফোনে অটো অ্যাপ আপডেট বন্ধ করবেন কীভাবে? জেনে নিন

Leave a Reply