Cryptocurrency: ক্রিপ্টোকারেন্সি বাজারে ভয়াবহ ধস, বিটকয়েন $21150

ক্রিপ্টোকারেন্সি বাজারে ভয়াবহ ধস নেমেছে। যার ফলে আলোচিত ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েন এর দাম ২০ হাজার ডলারের কাছাকাছি চলে এসেছে। এই ধসের ফলে বিরাট ক্ষতির মুখোমুখি বিটকয়েন বিনিয়োগকারীরা। গত কয়েক মাসে একের পর এক ধস সামাল দিতে পারছে না বিনিয়োগকারীরা। কেউ কেউ বলছে, এই ধস আরও বড় আকার নেবে আগামী দিনগুলোতে।

সর্বশেষ ২০২০ সালে ২০ হাজার ডলারের কাছাকাছি ছিল বিটকয়েন (Bitcoin)। এরপর ২০২১ সালের নভেম্বরে সর্বোচ্চ ৬৮ হাজার ডলারের উপরে উঠেছিল। মাত্র ৮ মাসে ৪৮ হাজার ডলার দাম হারায় বিটকয়েন। চলতি বছরে সর্বোচ্চ লেভেল থেকে প্রায় ৫৯ শতাংশ নিচে নেমেছে বিটকয়েন। শুধু বিটকয়েন নয়, অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সি যেমন ইথিরিয়াম, সোলানা এবং বিএনবিও ব্যাপক ধসের সম্মুখীন। বিটকয়েনের পর সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিপ্টোকারেন্সি ইথিরিয়াম। যার বাজারদর এখন ১ হাজারের ঘরে। এটিও চলতি বছরে ৭৩ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে।

(ফলো করুন আমাদের Google News, Facebook এবং Twitter পেজ)

ফলে, ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসের পর থেকে প্রথমবারের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সির সামগ্রিক বাজারমূল্য ১ ট্রিলিয়ন ডলারের নিচে নেমে এসছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি বাজারে ভয়াবহ ধস যে কারণে

বিশ্লেষকদের মতে, ক্রিপ্টোকারেন্সির দামের পতন শেয়ার বাজার এবং অন্যান্য সম্পদের দামের পতনের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। কারণ মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভসহ বিশ্বের মুদ্রা নিয়ন্ত্রণকারী বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কগুলি মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আর্থিক নীতিগুলিকে ক্রমশ কঠোর করে চলেছে৷

তবে ভিন্নমত প্রকাশ করে অনেকে বলছেন, সাম্প্রতিক সময়ে ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের মধ্যে। কিন্তু ক্রিপ্টোকারেন্সি কোনও মৌলিক ভিত্তি না থাকায় শেয়ার বাজারের চেয়ে ব্যাপক অস্থিরতা কাজ করে এখানে। এর ফলে ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলোর দাম একবার ফলে ফেঁপে ওঠার পর এটা ফেটে যেতেই এমন ভয়াবহ ধস।

ফের চাঙ্গা হওয়ার সম্ভাবনাও আছে!

ক্রিপ্টোকারেন্সি বিনিয়োগকারীদের অনেকে মনে করেন , বিটকয়েন কিংবা ইথিরিয়ামের দাম প্রচুর ওঠা নামা করে এবং এক সময় সর্বোচ্চ দামে গিয়ে পৌঁছায় যা মোটা মুনাফা তৈরি করে দেয়। এখন বিনিয়োগ করার ভালো সময় এবং এই পতন থেকে খুব শীঘ্রই ঘুড়ে দাঁড়াবে ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজার।

তবে বিনিয়োগকারীদের আরেক অংশ বলছেন, মৌলিক ভিত্তি/নীতি না থাকায় কখনো একটি কারেন্সি সেই উচ্চতা লাভ করতে পারে না। তাই সাময়িক সময়ের জন্য কিছুটা ঘুড়ে দাঁড়ালেও ক্রিপ্টোকারেন্সির ভবিষ্যত এখনও অন্ধকার।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনা-বেচা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ। তবে তাৎক্ষণিক লাভের আশায় বাংলাদেশের অনেক তরুণ যুবক নামে-বেনামে প্রবাসী স্বজন/বন্ধ-বান্ধবদের মাধ্যমে ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনা বেচা করে আসছে।

আরও পড়ুন:

Zoom Hack: সাবধান! হ্যাক হতে পারে আপনার জুম অ্যাপ

এন্টিভাইরাস অ্যাপ ইনস্টল থেকে সাবধান নইলে হ্যাক হতে পারে আপনার ফোন – 2022

ফোনে অটো অ্যাপ আপডেট বন্ধ করবেন কীভাবে? জেনে নিন

Leave a Reply